ঠিক যেন দম বন্ধ হয়ে আসছে,
চোখে অন্ধকার দেখছি, 
চারিদিকে শুধুই দুঃসংবাদ,
কখন যে কি হয় আল্লাহ জানেন, ও আল্লাহ কেন আমার সাথেই এমন হয়, এ বিপদ থেকে রক্ষা পাবো কি করে?
আমি আর পারছিনা!
ঠিক এমন করেই হাজার স্বপ্ন , আশা, হারিয়ে যায় হতাশার চোরাবালিতে।
আমরা মিরাকল এর আশায় বুক বাঁধি, আর ভাবি ইস! 
যদি আর একটু সময় পেতাম! 
উপরের কথাগুলো আমাদের সবার, বিশ্বাস করুন, এমন করেই আমরা আক্ষেপ করি! 
এই লিখা গুলো পড়ার সময়ও আপনি এটাই ভাবছেন । 
তাই নয়কি! 
না ভাবলে চলে, আপনারা যারা উদ্যোক্তা তারা এখন এমনই এক দুঃসময় পার করছেন, এক অনু পরিমাণ ভাইরাস আমাদের পৃথিবীটাতেই যতি চিহ্ন বসিয়ে দিয়েছে। অদ্ভুত এক সংকট! অনাকাঙ্ক্ষিত নিরবতা!তবে সৃষ্টির শ্রেষ্ঠ জীব তো আমরাই , আমাদের ভয় পেয়ে থামতে মানা। আমাদের চেষ্টা করতে ই হবে। আসুন সবাই একসাথে এবার চেষ্টা করি এ সংকটকালীন মুহুর্ত অতিক্রম করতে।করোনা ভাইরাস এর সংকট ব্যবস্থাপনার কিছু কার্যকরী পদ্ধতি রয়েছে, চলুন দেখি পদ্ধতি গুলো আমরা কে কতটুকু কাজে লাগাতে পারি।

Blog-2

আপনার প্রতিষ্ঠানের কাজের তালিকা, খরচের হিসাব, সহকারী মানব সম্পদ এর তালিকা, কাস্টমারদের তালিকা প্রস্তুত করুন এবং সব সামনে রেখে পরিকল্পনা করতে বসুন। অনেকেই মনে মনে সব হিসেব করেন ভালো কথা কিন্তু এক্ষেত্রে অবশ্যই সবকিছু লিখিত থাকা বাঞ্ছনীয় এতে করে ছোট ছোট ভুল গুলো এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব।

১. ঝুঁকি বিশ্লেষণ : Risk Assessment

আমাদের ব্যবসায় উদ্যোগ টার সামনে বর্তমানে কি কি ঝুঁকি রয়েছে , তার সংখ্যাবাচক তালিকা তৈরি করতে হবে। আমার ড্রেস এর ব্যবসা আর এই বৈশাখে তা আর বিক্রি হবে না এটা ঝুঁকি আর এটার সংখ্যাবাচক বিশ্লেষণ করতে হবে যেমন, আমার কত গুলো ড্রেস তৈরি আছে তার পরিমাণ, তৈরির খরচ, প্রতিষ্ঠানের খরচ, কতগুলো অর্ডার বাতিল করতে হয়েছে এই সব কিছুর পরিমাণ। সুতরাং এমন কতধরণের ঝুঁকি আমার সামনে রয়েছে এবং আনুমানিক সময়কাল ।

কি কি ঝুঁকি? কতটুকু ঝুঁকি?
কত সময়ের জন্য আনুমানিক?
ইত্যাদি পর্যালোচনা করে একটি তালিকা তৈরি করা।

২. ঝুঁকির ব্যবসায় প্রভাব বিশ্লেষণ : Business Impact Analysis ( BIA)

যে কারণে আপনি আপনার ব্যবসাকে ঝুঁকির মধ্যে দেখছেন তার প্রভাবে কতটুকু ক্ষতি হবে তার তালিকা তৈরি করতে হবে। স্বল্পমেয়াদী ও দীর্ঘমেয়াদি সবধরণের ক্ষতি বিবেচনা করতে হবে। এক্ষেত্রে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন, আমার অনেক ক্ষতি হবে এমনটা নয়, অনেক টা আসলে কতটুকু তা বিস্তারিত জানতে হবে। যেমন “আমি কাস্টমার হারাবো” , BIA হলো আমি কতজন কাস্টমার হারাবো, এদের মধ্যে কতজন আমার রিপিট কাস্টমার, কতজন লয়্যাল কাস্টমার, কোন ধরনের কাস্টমার ইত্যাদি। দুধরনের BIA প্রস্তুত করার চেষ্টা করবেন

Positive প্রভাব বা সুযোগ কি আছে?
Negative প্রভাব বা ক্ষতি কতটুকু?

২. ঝুঁকির ব্যবসায় প্রভাব বিশ্লেষণ : Business Impact Analysis ( BIA)

যে কারণে আপনি আপনার ব্যবসাকে ঝুঁকির মধ্যে দেখছেন তার প্রভাবে কতটুকু ক্ষতি হবে তার তালিকা তৈরি করতে হবে। স্বল্পমেয়াদী ও দীর্ঘমেয়াদি সবধরণের ক্ষতি বিবেচনা করতে হবে। এক্ষেত্রে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন, আমার অনেক ক্ষতি হবে এমনটা নয়, অনেক টা আসলে কতটুকু তা বিস্তারিত জানতে হবে। যেমন “আমি কাস্টমার হারাবো” , BIA হলো আমি কতজন কাস্টমার হারাবো, এদের মধ্যে কতজন আমার রিপিট কাস্টমার, কতজন লয়্যাল কাস্টমার, কোন ধরনের কাস্টমার ইত্যাদি। দুধরনের BIA প্রস্তুত করার চেষ্টা করবেন

Positive প্রভাব বা সুযোগ কি আছে?
Negative প্রভাব বা ক্ষতি কতটুকু?

২. ঝুঁকির ব্যবসায় প্রভাব বিশ্লেষণ : Business Impact Analysis ( BIA)

যে কারণে আপনি আপনার ব্যবসাকে ঝুঁকির মধ্যে দেখছেন তার প্রভাবে কতটুকু ক্ষতি হবে তার তালিকা তৈরি করতে হবে। স্বল্পমেয়াদী ও দীর্ঘমেয়াদি সবধরণের ক্ষতি বিবেচনা করতে হবে। এক্ষেত্রে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন, আমার অনেক ক্ষতি হবে এমনটা নয়, অনেক টা আসলে কতটুকু তা বিস্তারিত জানতে হবে। যেমন “আমি কাস্টমার হারাবো” , BIA হলো আমি কতজন কাস্টমার হারাবো, এদের মধ্যে কতজন আমার রিপিট কাস্টমার, কতজন লয়্যাল কাস্টমার, কোন ধরনের কাস্টমার ইত্যাদি। দুধরনের BIA প্রস্তুত করার চেষ্টা করবেন

Positive প্রভাব বা সুযোগ কি আছে?
Negative প্রভাব বা ক্ষতি কতটুকু?

মনে রাখবেন আপনার  BIA যত সঠিক হবে আপনার পরিকল্পনা তত নিখুঁত হবে তাই ক্ষতির পরিমাণ দেখে বিমর্ষ না হয়ে মনোযোগ দিন, সাহস দিন নিজেকে, সামনে ভালো দিন আসবেই ইনশাআল্লাহ, আর মনে রাখবেন যে চেষ্টা করে আল্লাহ তায়ালা তাকে নিজেই সহযোগিতা করেন।

এখন ছোট বড়, দেশী বিদেশী অন্যান্য ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান কি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে তার খোঁজ খবর নিন।
আপনার কাস্টমার এখন কি প্রাধান্য দিচ্ছে? আপনার সম-সাময়িক প্রতিষ্ঠান কি করছে?
(দয়া করে কাউকে হুবহু অনুসরণ করতে যাবেন না এটা আপনার ব্রান্ড ইমেজ নষ্ট করবে) ইত্যাদি।

পরিকল্পনা করুন

ঠিক‌ করুন আগামী একমাস, তিনমাস, ছয়মাস, একবছর, পাঁচ বছর পর কি করবেন। এরপর এমন কোন বিপদ এলে কি করবেন। আর সবসময় আপনার পরিকল্পনা আপডেট করবেন। 

আপনার প্রতিষ্ঠানের পরিকল্পনা করার সময় নিচের কাজগুলো মাথায় রাখতে পারেন:

  • খরচ নিয়ন্ত্রণে রাখা
  • কাস্টমার দের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করা, যা আপনার ব্যবসায়িক সম্পর্ক মজবুত করতে সাহায্য করবে।* কাস্টমার দের করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত তথ্য আদান-প্রদান করা, তাদের খোঁজ খবর রাখা।
  • সাপ্লায়ায়দের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখার চেষ্টা করা, তাদের মনোবল বৃদ্ধি করা, অন্যকে সাহস দেয়া যা আপনার নেতৃত্ব কে দৃঢ় করবে।
  • ব্যবসায়ীদের সাথে প্রয়োজনীয় সম্পর্ক স্থাপন করা। B2 B ( business to business) P2 P page to page, B2C (business to customer) C2 C ( customer to Customer) যেকোনো মাধ্যম আপনার প্রতিষ্ঠানের জন্য সফলতা বয়ে আনবে।
  • SWOT analysis করুন
  • নতুন দক্ষতা অর্জন করা
  • অপচনশীল পণ্য মজুদ রাখুন
  • পচনশীল পণ্য নিয়ে সাবধানে পরিকল্পনা করুন।
  • এক্ষেত্রে আমরা এলাকা ভিত্তিক পণ্য অর্ডার ও ডেলিভারী করতে পারি
  • অসহায় মানুষকে সাহায্য করুন সেটা একজন ই হোক, তার দোয়া আপনার জন্য আশীর্বাদ।
  • অবশ্যই পেজ এ নিয়মিত থাকা, সেটা যদি দোয়া করা ও হয় তাও পেজ বন্ধ করবেন না কারণ কাস্টমার রা সাহসিকতার গল্প ভালোবাসে, কেউ হারিয়ে গেলে কাস্টমার তার খোঁজ ও নিবে না, তারমানে আবার নতুন করে শুরু, আর নতুন করে শুরু মানেই খরচ বৃদ্ধি।

মনে রাখবেন আল্লাহ ব্যবসাকে পছন্দ করেন বলেই তা হালাল বলে ঘোষণা দিয়েছেন, আর তারা সৎভাবে ব্যবসা করেন তাদের ও পছন্দ করেন। তাই তাঁর কাছে বেশি বেশি সাহায্য প্রার্থনা করুন এবং কাজ টাকে ভালোবেসে সামনে এগিয়ে চলুন।

WE (Women and e-Commerce forum) থেকে করণীয়:

  • এলাকা ভিত্তিক পণ্য অর্ডার ও ডেলিভারী সার্ভিস চালু।
  • সবাই মিলে উদ্যোক্তাদের জন্য সরকারি প্রণোদনা সহায়তার জন্য কাজ করা
  • নিজেদের প্রয়োজন উই থেকে প্রথমে সংগ্রহ করা
  • উদ্যোক্তা বন্ধু রা নিজেরা কে কোন এলাকায় আছি তার সমন্বিত তালিকা প্রস্তুত করা, যেমন রামপুরায় কে কে চাল ডাল সরবরাহ করতে পারবেন তা প্রকাশ করা , এতে করে ঐ এলাকার মানুষ দ্রুত সার্ভিস পাবেন।
শবনম মোস্তারী
উদ্যোক্তা বন্ধু ও প্রতিষ্ঠাতা
D Leader
সহকারী অধ্যাপক (ব্যবসায় প্রশাসন)
স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ