বর্তমান যুগে অনলাইন প্লাটফর্মে নিজের উদ্যোগকে কিভাবে টিকিয়ে রাখতে পারি?

গতকালকে দারুন একটি প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হয়েছিল।সেখানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফাউন্ডার সার্চ ইংলিশ গ্রুপ এবং ফর্মার ফাউন্ডার প্রেসিডেন্ট ই-ক্যাব শ্রদ্ধেয় রাজিব আহমেদ স্যার এবং ড. রোলান্ড বার্ডিএক্সিকিউটিভ প্রফেসর জেনারেল ম্যানেজমেন্ট এন্ড লিডারশিপ (Florida gulf coast University).রাজিব আহমেদ স্যারের বক্তব্য থেকে যা শিখতে পেরেছি সংক্ষিপ্তাকারে তুলে ধরলাম সবার জন্য।💐ই-কমার্স💐বর্তমান যুগে অনলাইন প্লাটফর্মে নিজের উদ্যোগকে কিভাবে টিকিয়ে রাখতে পারি???🍂 একজন ই-কমার্স উদ্যোক্তা হিসেবে সবসময় শেখার মনোভাব থাকতে হবে। যদি আমরা দেশীয় পণ্য নিয়ে কাজ করে থাকি তাহলে অন্যান্য দেশীয় পণ্যের উদ্যোক্তারা কিভাবে কাজ করছেন , সেখান থেকে শিখতে হবে।🍂 প্রডাক্ট সোর্সিংয়ের ক্ষেত্রে খুবই মনোযোগী হতে হবে। শুধুমাত্র পাইকারি থেকে কিনে এনে বিক্রি করে দিলাম এমনটা চলবে না। আমি যে পণ্য নিয়ে কাজ করব সেই পণ্য কোথা থেকে তৈরি হচ্ছে,, পণ্যটির সম্পর্কে যত তথ্য আছে সব কিছু সঠিকভাবে জানতে হবে।🍂 অনেক অনেক প্রোডাক্ট স্টক করে ব্যবসা শুরু করে দেয়া উচিত না। মার্কেট সম্পর্কে যাচাই-বাছাই করতে হবে, টার্গেট অডিয়েন্সের সম্পর্কে জানতে হবে, প্রোডাক্ট সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা থাকতে হবে। 🍂অনলাইনে ব্যবসার ক্ষেত্রে হঠাৎ করে কোনো সিদ্ধান্ত না নিয়ে পুরো ব্যাপারটা জেনে-বুঝে সামনে আগাতে হবে। ধৈর্য্য ধরে দীর্ঘদিন কাজ করে যাওয়ার মানসিকতা থাকতে হবে।🍂 সোশ্যাল মিডিয়ার প্ল্যাটফর্মগুলোতে একটিভ থাকতে হবে। কাস্টমারের মাইন্ডসেট বুঝতে হবে। যার যার কাজের বিষয়গুলো সম্পর্কিত কিছু তথ্য সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোতে আপলোড করতে হবে।🍂কাস্টমার সামনে এমন একটি বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশে নিজের প্রোডাক্ট ও সার্ভিস তুলে ধরতে হবে যাতে কাস্টমার নিজে থেকে আগ্রহী হয়ে পণ্য বা সার্ভিসটি নিতে চান।🍂 কাস্টমার রিভিউকে গুরুত্ব দিতে হবে। কাস্টমার ফিডব্যাক নিতে হবে। কাস্টমারদের সাথে মিট আপের ব্যাবস্থা করতে হবে। এতে করে আন্তরিকতা বাড়বে। রিপিট কাস্টমার বাড়বে। আর নিজের পণ্য বা সার্ভিস সম্পর্কিত সঠিক ফিডব্যাক পাওয়া যাবে।🍂 কাস্টমারকে স্পেশাল ফিল করাতে হবে।🍂 প্রডাক্ট সম্পর্কিত সঠিক তথ্যগুলো তুলে ধরতে হবে।🍂 ই-কমার্স এর ক্ষেত্রে অবশ্যই প্রোডাক্টের ফটোগ্রাফির দিকে খেয়াল রাখতে হবে। আকর্ষণীয় ফটোগ্রাফি অবশ্যই কাস্টমারকে আকর্ষণ করবে।🍂একজন ই কমার্স উদ্যোক্তা হিসেবে প্রতিনিয়ত ব্যবসার বিভিন্ন বিষয়গুলো নিয়ে জানার চেষ্টা করতে হবে।🍂 সোশ্যাল মিডিয়ায় প্লাটফর্মে ভালো কনটেন্ট লেখার চর্চা চালিয়ে যেতে হবে।অবশ্যই একজন কাস্টোমার ভালো কনটেন্টের প্রতি আগ্রহী হবেন।🍂 মার্কেটিং মানে শুধু সেল্স না বরং প্রোডাক্ট তৈরি থেকে মার্কেটিংয়ের ধাপ শুরু হয়। এই ব্যাপারটা মাথায় রাখতে হবে।নিজের সৃজনশীলতাকে কাজে লাগাতে হবে। অন্যকে দেখে নয় বরং নিজের স্ট্রেন্থ কোথায় সেই অনুযায়ী কাজ করতে হবে।ধন্যবাদ সবাইকে 💐

Rokkya Sultana
Founder and Managing Director at Quality Shareez

1 thought on “বর্তমান যুগে অনলাইন প্লাটফর্মে নিজের উদ্যোগকে কিভাবে টিকিয়ে রাখতে পারি?”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *